কচুক্ষেতের কচু



ছেলেটার নাম হযরত। বয়স সাড়ে পাঁচ। কচুক্ষেত এলাকায় তার বিচরণ। একটা ফুডকার্টে চাকরী করে। বেতন নয়শো টাকা। 

হযরতের বয়স যখন তিন, তখন তার মা তাদের ছেড়ে চলে যায় অন্য এক লোককে বিয়ে করে। তার তিন মাস পরই তার বাবা অন্য এক মহিলাকে বিয়ে করে ঢাকার বাইরে চলে যায়। ভাই-বোন হীন, বাবা-মা হীন হযরত পরে থাকে কচুক্ষেত এলাকায়। যে যাই দিতো, তাই খেতো আর রাতে পার্কে ঘুমিয়ে যেতো। একসময় এই ফুডকার্টের মালিক হযরতের দেখভালের দায়িত্ব নেয়। বিনিময়ে হযরত তাকে সন্ধ্যার পর সাহায্য করে। ফুডকার্টের মালিক নয়শো টাকা হিশাবে হযরতের জন্য জমা রাখছে, সে বড় হলে দেবে। 

মা বা বাবা,  কেউ এখন পর্যন্ত হযরতের কোন খোজ নেয়নি। তার নানা অবশ্য মাঝে মাঝে এসে খোজ নেয়। 

হযরতের কাজ হলো যারা খেতে আসে তাদের কে খাবার পরিবেশন করা এবং বাসন ধোয়া। এই কাজে সে বেশ চটপট।

Comments

Popular posts from this blog

How strong is Myanmar's military?

বিমান দুর্ঘটনা

পঁচাত্তরের নভেম্বরঃ নাগরদোলায় অনৈক্য,বিভক্তি ও সংঘাত (প্রথম পর্ব)